Wednesday, 15 July 2020

আমি পারব, আমাকে পারতেই হবে। আপনার অনুপ্রেরণামূলক দক্ষতা কীভাবে উন্নত করবেন, সিরিজ-১৩০(প্রেরণা)[How to Improve Your Motivational Skill, Series-130 (Prerana)]


প্রেরণা সিরিজ - ১৩০,PRERANA SERIES-130 (Motivational & Inspirational)
লেখক – প্ৰদীপ কুমার রায়।

আগেই বলে নিচ্ছি কেননা তোমরা পরে ভুলে যাবে বাকি অন্যান্যদের  সাহায্যের উদ্দেশ্যে শেয়ারটা মনে করে,করে দেবে এবং ডানদিকের উপরের কোনে অনুসরণ বাটন অবশ্যই ক্লিক করে অনুসরণ করবে।শুরু করছি আজকের বিষয় ।নমস্কার বন্ধুরা আমি প্রদীপ  তোমাদের সবাইকে আমার এই Pkrnet Blog  এ স্বাগতম।আশা করি সবাই তোমরা  ভালোই  আছো  আর  সুস্থ আছো।




যখন তিনি গেলেন চাকরির ইন্টার্ভিউ দিতে তখন তাকে বলা হল তিনি চাকরি করার যোগ্যতা রাখেন না! তার দক্ষতার অভাব রয়েছে ! কথাগুলো শুনে তিনি রাগ করেননি কিংবা ভেঙ্গেও পড়েননি; তবে প্রতিজ্ঞা করেছিলেন নিজেকে প্রমাণ করবেন, প্রমাণ দেবেন যে চাকরিদাতাদের কথাগুলো ভুল”! আর ঠিক করলেনও তাই নিজেই প্রতিষ্ঠা করলেন কোম্পানি ! নিজের বুদ্ধিমত্তা দিয়েই বানাতে লাগলেন নিত্য নতুন মডেলের গাড়ি যার ব্রান্ড নামহোন্ডাযার প্রতিষ্ঠাতা হলেন হার না মানাসইচিরও হোন্ডা

মহিলাটির চেহারা খারাপ ছিল! তাই তিনি চাইতেন সুন্দরী হতে। তিনি চেষ্টাও করেছিলেন সুন্দর হতে কিন্তু চেহারাকে পরিবর্তন করার সাধ্য কার ! ‘খারাপ চেহারা’ নিয়েই হাজির হলেন চাকরির ইন্টার্ভিউ দিতে! ফল যা ভেবেছিলেন তাই হল, শুনতে হল- ‘আপনার যোগ্যতা নেই’! তিনি ভেবে নিলেন এটাও সেই খারাপ চেহারার ফসল!তবে কিছুদিন পর তিনি পরিবর্তন করলেন নিজেকে। বদলে ফেললেন আপন হৃদয়কে! সিদ্ধান্ত নিলেন-“খারাপ চেহারাকে সুন্দর করা নয়, বরং সুন্দর কিছু করেই এই চেহারাকে সুন্দর করে ফেলবেন যেন হাজারো মুক্তা সদৃশ চেহারার মাঝেও নিজের চেহারাটি জ্বলজ্বল করে সবার আগে। আর করলেনও তাই; উন্নত করলেন নিজের ব্যক্তিত্ব! বাড়ালেন নিজের দক্ষতা !দিতে গেলেন ইন্টার্ভিউ আর ছোট পদের চাকরিটাকেই এক নিমিষে করে ফেললেন নিজের নামে চলা জগতের সব থেকে বড় অনুষ্ঠানের কারিগর!হ্যাঁ; তিনি হলেন চির পরিচিত অপরাহ উইনফ্রে যার নিজের নামে চলা অনুষ্ঠানটিই হল- “দ্য অপরাহ শো”!

হতেই পারে আপনার চেহারা খারাপ, হতেই পারে আপনাকে শুনতে হয়েছে আপনি “যোগ্য নন”, হতেই পারে আপনি যা চেয়েছেন তা একবারেই হয়নি! কিন্তু তাতে কি? সফল ব্যক্তিদের ইতিহাস দেখুন; কার নাম বলবেন যিনি একবারে সফল হয়েছিলেন? কাকে দেখাবেন যিনি বলবেন তিনি কোনও ঝামেলা ছাড়ায় সফল হয়েছেন? ইতিহাস সর্বদা এক! কথায় বলে-“ভালো জিনিস একটু দেরি করেই আসে”! ঠিক তাই; আজকের দিনের গ্লানি, ব্যার্থতা সবই এক সময় ধুয়ে-মুছে যাবে, তবে তার জন্য শুধু চাই একটু ধৈর্য আর কঠোর পরিশ্রম ! প্রতিদিন অন্তত একবার হলেও বলুন, “আমি পারব। আমাকে পারতেই হবে”।

যা ঘটছে তা অবশ্যম্ভাবী এবং অনিবার্য। আপনাকে বিশ্বাস করতে হবে যে যাই ঘটছে তা মানুষের মঙ্গলের জন্যই ঘটছে। এর মধ্যে হস্তক্ষেপ করার বা একে থামানোর কোন অধিকার আপনার নেই। ভগবৎ গীতা আপনাকে শুধু ফলের চিন্তা না করে কর্ম করে যাওয়ার অনুমতি দেয়। কর্মফলের ওপর আপনার কোন দাবি নেই।ভগবৎ গীতা থেকে আপনাকে যে বিষয়গুলি শিখতে হবে, সেগুলির মধ্যে এটি একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়-খালি হাতেই আপনি জন্মে ছিলেন এবং সেই অবস্থাতেই আপনি এই পৃথিবী ছেড়ে চলে যাবেন। মৃত্যুর পর আপনি আপনার সাথে কোন পার্থিব সম্পদ বয়ে নিয়ে যেতে পারবেন না। লোভ, লালসা এবং ক্রোধ বিষ-তুল্য এবং মানুষের প্রকৃতি চরিত্রকে নষ্ট করে। একটি শান্তিপূর্ণ জীবন যার পথ আপনাকে মহিমান্বিত করতে পারে তার জন্যে গীতা আপনাকে এই তিনটি অশুভ রিপু দ্বারা ভুগতে দেয় না। আপনাকে ভগবৎ গীতা থেকে যে বিষয়গুলি শিখতে হবে, সেগুলির মধ্যে এটি একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আপনি সন্দেহ পরিত্রাণ না করলে, মানসিক শান্তি পাওয়ার কথা আশা করতেই পারবেন না।-ভগবৎ গীতা

জীবনে অনুপ্রেরণার গুরুত্ব যে কতটা, তা আমরা কমবেশি  প্রত্যেকেই জানি। প্রত্যেক মানুষই চায়  তারা যেন সর্বদা অনুপ্রাণিত থাকেন। এই অনুপ্রেরণা মূলক বিচার গুলিকে বাস্তব জীবনে ঠিক  মত মেনে চললে যে কোনো মানুষের জীবন অনয়াসেই বদলে যেতে পারে ।

মোটিভেশনাল ভিডিও দেখতে উপরের ডানদিকের কর্নারে YouTube লিঙ্ক অথবা এখানে Pkrnet এই লিঙ্কটির উপর ক্লিক করুন। এতক্ষণ সময় দিয়ে পড়ার জন্যে তোমাকে  অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই  পিকেআর নেট  ব্লগ - এর পক্ষ থেকে | পোস্টটা ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই একটু Comment করে তোমার মতামত আমায় জানিও |তোমার মূল্যবান মতামত আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাতে ভীষনভাবে সাহায্য করে।


Mahabharate Ki Ki Tathya Chinhita Achhe Ja ajo Pransangik?



No comments:

Post a comment