Saturday, 23 November 2019

How to Improve Your Motivational Skill, Series 49 (Prerana)

প্রেরণা সিরিজ ৪৯ ,  PRERANA SERIES - 49     (Motivational & Inspirational)
লেখক – প্রদীপ কুমার রায়।
                                                  আগেই বলে নিচ্ছি কেননা তোমরা পরে ভুলে যাবে বাকি অন্যান্যদের  সাহায্যের উদ্দেশ্যে শেয়ারটা মনে করে, করে দেবে। শুরু করছি আজকের বিষয় 
                                         নমস্কার বন্ধুরা আমি প্রদীপ  তোমাদের সবাইকে আমার এই Pkrnet Blog   স্বাগতম।আশা করি সবাই তোমরা  ভালোই  আছো  আর  সুস্থ আছো।


আমার ওয়েবসাইটে যেতে এখানে ক্লিক করুন 
সামনে টার্গেট না থাকলে উদ্দীপ্ত হওয়া যায় না। সবাই প্রশংসা করলে মুশকিল। কিছু বিরোধিতা দরকার । বিরোধিতা থাকলে তাকে চূর্ণ করে সফল হওয়ার জেদ তৈরী হয়। আত্মসমর্পন নয়, বাঁচার মতো বাঁচতে শেখো । কথা বলা হলো কঠিনতম কাজ । তোমাদের জীবনে তর্ক -বিতর্ক , ঝড়গা - বিবাদ, মনোমালিন্য, মতান্তর লেগেই থাকে। কি স্কুল-কলেজে, কি সংসারে, কি বন্ধুবান্ধবদের আড্ডায়, কি কর্মক্ষেত্রে বা আত্মীয় স্বজন সবার সঙ্গে কোনো না কোনো ভাবে মনোমালিন্যের সৃষ্টি হয়  কথাবার্তার মাধ্যমে। সঠিকভাবে বোঝা বা বুঝতে না পারা , বা বোঝাতে না পারা-- সৃষ্টি হয় ভুল বোঝাবুঝির। সেটা একসময় এমন একটা পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছায় , যে সম্পর্কই যায় ভেঙে। আবার এই থেকেই আক্রোশ , হিংসা,বিদ্বেষ,রক্তপাত পর্যন্ত হয়। 

কথা বলা পৃথিবীতে সবচেয়ে কঠিনতম কাজ। কথার মাধ্যমেই শান্তি, কথার মাধ্যমেই যুদ্ধ। তোমাকে সবচেয়ে আগে কথা বলাটা শিখতে হবে। সঠিক সময়ে সঠিক যুক্তি দিয়ে সঠিক কথা বলতে পারাটা জরুরি। ভালো কথা না বলতে পারলে চুপ করে থাকা উচিত , তাতে কেউ কেউ তোমাকে বোকা ভাবতে পারে, কিন্তু অর্থহীন কথা বললে এটা প্রমান হয়ে যাবে যে তুমি বোকা। অপ্রয়োজনীয় কথা ভুলতে শিখতে হবে এবং সেই সাথে অল্পবিস্তর মনোমালিন্যও ভুলে গিয়ে সামনের দিকে তাকাতে হবে। সর্বদা নিজেকে সঠিক প্রমান করতে চাইবে না। বির বির করার পরিবর্তে দৃঢ়তার সাথে পরিষ্কার ভাবে নিজের বক্তব্য উপস্থাপিত করো।

নিজের কথা পরিষ্কার করে বোঝাতে তোমাদের উচিত কথার ভাঙি পাল্টানোর এবং বাক্যের বিভিন্ন শব্দের উপর গুরুত্ব দিয়েই ঐ প্রকাশভঙ্গি পাল্টানো উচিত। প্রত্যেকের উচিত সপ্রতিভ ব্যবহার , নারমস্বাভাব, আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্ব এই বিষয়গুলিকে প্রাধান্য দেওয়া । অন্যের প্রতি অন্যায় না করার মতোই নিজের প্রতিও অন্যায় না করাটাও গুরুত্বপূর্ণ । বিভিন্ন পড়াশোনা করার পর যদি কেউ তোমাকে তোমার নিজের পছন্দমতো কাজ করতে না দেয় , সেটা কিন্তু তোমার প্রতি অন্যায় করা হবে এবং সেটা তোমার মেনে নেওয়া অনুচিত হবে। জীবনে নানারকম সমস্যা আসবেই । সাহস করে সেগুলোর সাথে লড়ে যেতে হবে। ভেঙে পরো না, উদ্যম হারিয়ো না। মনোযোগ দিয়ে বক্তব্য শোনা একটি ক্ষমতা কিন্তু যদি কেবল শুনেই যাও  কোনো প্রতিক্রিয়া না জানাও  তাহলে তখন এটি দুর্বলতা।
শেক্সপীয়ার 



"সময় আপনার জীবনের সর্বাধিক মূল্যবান মুদ্রা। এই মুদ্রাটি কীভাবে ব্যয় হবে তা আপনি এবং আপনি একাই নির্ধারণ করবেন। সাবধান থাকুন যে আপনি অন্য লোকেদের আপনার জন্য এটি ব্যয় করতে দেবেন না"। - মাইকেল আল্টশুলার

“আপনি হারিয়ে যাওয়া সময়ের জন্য আক্ষেপ  করতে পারবেন এবং  আপনি  ভবিষ্যতে আরও ভাল করতে পারবেন"।--অ্যাশলে অরমন
“একজনের সর্বদা যথেষ্ট সময় থাকে, যদি কেউ এটি ভালভাবে প্রয়োগ করেন"।--জোহান ওল্ফগ্যাং ভন গোয়েথ
"প্রত্যেকের প্রতিদিন একই পরিমাণে ঘন্টা থাকে, এটি এমন নয় যে আপনার পর্যাপ্ত সময় নেই, এটি আপনার স্পষ্ট ফোকাস নেই"।--ব্রিজেট ইংলিশ
"সময়ের বাইরে চলে যাওয়ার দ্রুততম উপায় হ'ল আপনার যথেষ্ট পরিমাণ আছে তা ভাবা"।--স্টুয়ার্ট স্টাফোর্ড


জীবনে অনুপ্রেরণার গুরুত্ব যে কতটা, তা আমরা কমবেশি  প্রত্যেকেই জানি| প্রত্যেক মানুষই চায়  তারা যেন সর্বদা অনুপ্রাণিত থাকেন |
এই অনুপ্রেরণা মূলক বিচার গুলিকে বাস্তব জীবনে ঠিক  মত মেনে চললে যে কোনো মানুষের জীবন অনয়াসেই বদলে যেতে পারে 
মোটিভেশনাল ভিডিও দেখতে উপরের ডানদিকের কর্নারে YouTube লিঙ্ক অথবা এখানে Pkrnet এই লিঙ্কটির উপর ক্লিক করুন।
এতক্ষণ সময় দিয়ে পড়ার জন্যে তোমাকে  অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই  পিকেআর নেট  ব্লগ - এর পক্ষ থেকে | 
পোস্টটা ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই একটু Comment করে তোমার মতামত আমায় জানিও |তোমার মূল্যবান মতামত আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাতে ভীষনভাবে সাহায্য করে।



No comments:

Post a comment