Friday, 18 September 2020

আপনার অনুপ্রেরণামূলক দক্ষতা কীভাবে উন্নত করবেন, সিরিজ-১৪৫(অনুপ্রেরণা)[How to Improve Your Motivational Skill, Series-145 (AnuPrerana)]

 যদি নতুন পথ তৈরি হয় তবে লক্ষ্য অবশ্যই প্রাপ্ত হবে আর যদি লক্ষ্য পরিবর্তনের বা নবনির্মানের হয় তাহলে পথ স্বয়ংই তৈরি হবে। অনুপ্রেরণা সিরিজ - ১৪৫,ANUPRERANA SERIES-145 (Motivational & Inspirational)

লেখক – প্ৰদীপ কুমার রায়।

 আগেই বলে নিচ্ছি কেননা তোমরা পরে ভুলে যাবে বাকি অন্যান্যদের  সাহায্যের উদ্দেশ্যে শেয়ারটা মনে করে,করে দেবে এবং ডানদিকের উপরের কোনে অনুসরণ বাটন অবশ্যই ক্লিক করে অনুসরণ করবে।শুরু করছি আজকের বিষয় ।নমস্কার বন্ধুরা আমি প্রদীপ  তোমাদের সবাইকে আমার এই Pkrnet Blog  স্বাগতম।আশা করি সবাই তোমরা  ভালোই  আছো  আর  সুস্থ আছো।

 


আমার ওয়েবসাইটে যেতে এখানে ক্লিক করুন

সূর্যোদয়ের ঠিক পূর্বে রাত্রি কিছুটা অধিক গহীন আর ঘন হয়ে যায়। সেই প্রকারেই একটা নতুন প্রারম্ভের পূর্বে আমাদের মনে বিচারে আর চিন্তায় অন্ধকার ছেয়ে যায়। মানুষের মন তো! দুবিধা এসেই যায়। মানুষ চিন্তা করতে থাকে যে ভবিষ্যতে যেটা হবে সেটা কি শুভ হবে? আমরা আমাদের জীবনের পশ্চাতে যা ছেড়ে এসেছি সেটা ভুল নয় তো? এরূপ পরিস্থিতিতে কি করা উচিত? কেবল একটাই উপায় আছে, সামনে চলতে থাকুন, এগিয়ে চলুন, কারণ এগিয়ে চলতে গেলে আমাদের কে সেই ভূমিকেই ধাক্কা দিতে হয় যার উপর আমরা দাড়িয়ে আছি, যেখানে কোন লক্ষ্য খুঁজতে হয় না, শুধু একটা নতুন পথ বানানোর জন্য পরিশ্রম করতে হয়। কারণ যদি নতুন পথ তৈরি হয় তবে লক্ষ্য অবশ্যই প্রাপ্ত হবে। আর যদি লক্ষ্য পরিবর্তনের বা নবনির্মানের হয় তাহলে পথ স্বয়ংই তৈরি হবে।

আমেরিকান সাবেক রাষ্ট্রপতি আব্রাহাম লিংকন প্রেসিডেন্ট হয়ে প্রথম যেদিন পার্লামেন্টে ভাষণ দিচ্ছিলেন তখন এক ভদ্রলোক দাড়িয়ে বললেন, "লিংকন সাহেব ভুলে যাবেন না আপনার বাবা আমাদের পরিবারের জন্য জুতা তৈরি করে দিতেন"।  একজন মুচির ছেলেকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে অনেকেই মেনে নিতে পারেননি। তখন ,একথা শোনার পরে সবাই চুপ হয়ে গেলেন কিন্তু লিংকন মোটেই বিচলিত হলেন না, লিংকন লোকটির চোখে চোখ রেখে বললেন, "আমি জানি স্যার আমার বাবা আপনার কেন এখানে অনেকেই আছেন যাদের পরিবারের জন্য জুতা তৈরি করতেন, এজন্য আমি গর্বিত  কারণ বাবা ছিলেন জুতা তৈরির জন্য জিনিয়াস, তিনি  কাজকে কখনো ছোট করে দেখতেন না, বাবা ছিলেন জুতা তৈরির নিপুন কারিগর,আজও পর্যন্ত তার কোন কাজের সমালোচনা হয়নি কারন তিনি কাজ করতেন শুধু গ্রহিতার সন্তেষ্টির জন্য নয়, নিজের সন্তেষ্টির জন্যও। আপনার যদি কোন অভিযোগ থাকে তাহলে বলুন আমি আপনাকে এক জোড়া জুতা তৈরি করে দেব আমিও ভাল জুতা তৈরি করে পারি ।" একথা শোনার পর লোকটি লজ্জায় মাথা নিচু করে রইলেন ,তখন লিংকন বললেন,"কোন কাজকেই ছোট ভাববেন না, কাজকে সম্মান করুন তা না হলে সারা জীবন অন্যের দয়ায় বাঁচতে হবে।  ভাল কাজের প্রসংশা করুন আর মন্দ কাজ বর্জন করুন ।"

Give Up করার মানে কিন্তু সবসময় এটা না যে আপনি খুব দুর্বল প্রকৃতির, এর মানে আপনি অনেক শক্তিশালী এবং অনেক বুদ্ধিমান যে সেইসব ছেড়ে দিয়ে আগে অগ্রসর হতে চায়।  যদি আপনি বাস্তবে সত্যিই কিছু করতে চান তাহলে কোনো না কোনো রাস্তা ঠিকই খুঁজে পাবেন, আর না যদি কিছু করতে চান তাহলে আপনি অজুহাতও ঠিকই খুঁজে পাবেন।  আপনি যদি নিজের জীবনকে নিজের মত করে কাটাতে চান তাহলে কোনদিনও কারোর বেশি ভক্ত (Fan) হতে যাবেন না। যতক্ষণ আপনি অন্যদের; নিজের সমস্যা এবং কঠিন পরিস্থিতির জন্য দায়ী বলে মনে করবেন ততক্ষণ আপনি আপনার সমস্যা এবং কঠিন পরিস্থিতি গুলিকে দূর করতে একদমই পারবেন না। নিজের জীবনের মূল্যবান সিদ্ধান্ত নিজেই নিতে শিখুন, তা না হলে আপনার জীবনের সেই সিদ্ধান্ত অন্য কেউ নিতে সামান্য সময়ও নষ্ট করবেনা। সফলতা আমাদের পরিচয় দুনিয়ার কাছে করায় কিন্তু অসফলতা আমাদের দুনিয়ার পরিচয় করায়।  

জীবনে অনুপ্রেরণার গুরুত্ব যে কতটা, তা আমরা কমবেশি  প্রত্যেকেই জানি। প্রত্যেক মানুষই চায়  তারা যেন সর্বদা অনুপ্রাণিত থাকেন। এই অনুপ্রেরণা মূলক বিচার গুলিকে বাস্তব জীবনে ঠিক  মত মেনে চললে যে কোনো মানুষের জীবন অনয়াসেই বদলে যেতে পারে

 মোটিভেশনাল ভিডিও দেখতে উপরের ডানদিকের কর্নারে YouTube লিঙ্ক অথবা এখানে Pkrnet এই লিঙ্কটির উপর ক্লিক করুন। এতক্ষণ সময় দিয়ে পড়ার জন্যে তোমাকে  অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই  পিকেআর নেট  ব্লগ - এর পক্ষ থেকেপোস্টটা ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই একটু Comment করে তোমার মতামত আমায় জানিও |তোমার মূল্যবান মতামত আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাতে ভীষনভাবে সাহায্য করে।


No comments:

Post a comment