Tuesday, 22 September 2020

আপনার অনুপ্রেরণামূলক দক্ষতা কীভাবে উন্নত করবেন, সিরিজ-১৪৭(অনুপ্রেরণা)[How to Improve Your Motivational Skill, Series-147 (AnuPrerana)]

 সাময়িক যাত্রা বিরতি দেওয়া যেতে পারে, কিন্তু কখনোই যাত্রাভঙ্গ যেন না হয়। অনুপ্রেরণা সিরিজ - ১৪৭,ANUPRERANA SERIES-147 (Motivational & Inspirational)

লেখক – প্ৰদীপ কুমার রায়।

 আগেই বলে নিচ্ছি কেননা তোমরা পরে ভুলে যাবে বাকি অন্যান্যদের  সাহায্যের উদ্দেশ্যে শেয়ারটা মনে করে,করে দেবে এবং ডানদিকের উপরের কোনে অনুসরণ বাটন অবশ্যই ক্লিক করে অনুসরণ করবে।শুরু করছি আজকের বিষয় ।নমস্কার বন্ধুরা আমি প্রদীপ  তোমাদের সবাইকে আমার এই Pkrnet Blog  স্বাগতম।আশা করি সবাই তোমরা  ভালোই  আছো  আর  সুস্থ আছো।


পথ পথিক তৈরি করেনা, পথিকই পথ তৈরি করে নেয়। কথাটা মনে হয় সব সময় ঠিক নয়। পথ তৈরিই ছিল, আমিও হাঁটলাম সে পথে। আমার আগেও শত শত পথিক হেঁটেছে এ পথে, পরেও সহস্রজন হাঁটবে । আরও মজবুত আর দৃঢ় পায়ের পথিকের পায়ের ঘষায় মুছে যাবে আমার পায়ের ছাপ। এই পথে কেউ হেঁটেছে দৃপ্ত পায়ে, কেউ চলেছে খুঁড়িয়ে। কেউ কেউ খুঁড়িয়ে চলা সহযাত্রীকে ধরে পার করে দিয়েছেন। সবার পায়ের ছাপ আছে এই পথে। কারোরটা হয়ত আরেকজনের পায়ের ছাপের নিচে ঢাকা পড়ে গেছে। কোন কোন পায়ের ছাপ আবার চোখের সামনে ঝকমক করছে।আমিও হেঁটেছি এ পথে। আমিও এঁকেছি পায়ের চিহ্ন আর সবার মত সদর্পে হয়ত নয়। দৌড় দিয়ে গন্তব্যে পৌঁছালে মনে একটু অতৃপ্তি থেকে যেতে পারে, পথের পাশের সবটুকু সৌন্দর্য দেখা হলনা যে , তাই হয়ত আমার স্থান জুটেছিল সবার পিছনে ! তবু পথ থাকবে, পথিকও থাকবে। এ পথ থাকবে, সে পথ থাকবে। নানান পথে নানান রকমের পথিক হাঁটবে, ছুটবে, জিরোবে, গল্প করবে, আমোদ করবে। যাত্রা বিরতি দেবে পথিক। কিন্তু, যাত্রাভঙ্গ যেন না হয়।

ব্যক্তি যখন কোন কাজে ব্যর্থ হয় বা অসফল হয়, তখন স্বাভাবিকভাবে সে ভেঙ্গে পড়ে। ব্যর্থটার গ্লানি তাকে গ্রাস করে ফেলে। ব্যক্তি তখন মনে করে,এই পৃথিবী অর্থহীন,আমি নিজেই অর্থহীন। কিন্তু শাস্ত্রে বলা হয়েছে.....যখন দুঃখ আপনাকে গ্রাস করবে, জীবন যখন কষ্টের গভীর সাগরে নিমজ্জিত হবে , তখন আপনি এমন কিছুকে আঁকড়ে ধরুন, যা আপনাকে তীরে পৌছতে সাহায্য করবে। আপনার কর্মই আপনার দায়, ফলাফল নয়। কখনোই আপনার  কর্মের ফলকে আপনার  উদ্দেশ্য হতে দেবেন না। অকর্মকেও দেবেন না। নিজের মধ্যে স্থির থাকুন , নিজের কর্ম সম্পাদন করুন , কিছুর প্রতিই আসক্ত থাকবেন না। সাফল্যে স্থিরথাকুন ,এবং থাকুন  ব্যর্থতায়ও। স্থিরমনস্ক হওয়াই প্রকৃত যোগ।

যদি একজন পরাজিত মানুষ হেরে যাওয়ার পরও হাসি মুখে থাকে, তাহলে জয়ী মানুষটি তার জেতার আনন্দ নিমেষে হারিয়ে ফেলবে – এটিই হলো হাসির আসল শক্তি। ব্রহ্মান্ডের সকল শক্তি আমাদের মধ্যে আগে থেকেই নিহিত আছে, কিন্তু  আমরা স্বয়ং নিজেদেরই চোখকে হাত দিয়ে ঢেকে রেখেছি আর তারপর নিজেরাই কেঁদে বলছি চারিদিকে কত অন্ধকার। চেষ্টা কখনো ছাড়া উচিত নয়, কারণ চাবিগুচ্ছের শেষ চাবিটিও কিন্তু তালা খুলতে পারে। আপনি এটা কখনই বলতে পারেন না যে আপনার কাছে পর্যাপ্ত সময় নেই, কারণ আপনি দিনে ঠিক একই পরিমান (২৪ ঘন্টা) সময় পান যা পৃথিবীর মহান আর সফল লোকেরাও পায়। যে ব্যক্তি সাংসারিক বস্তুর প্রতি ব্যাকুল হননা, সেই ব্যক্তি অমরত্ব লাভ করে ফেলেছেন। সত্যিকারের প্রচেষ্টা কখনই ব্যর্থ হয় না। যদি আপনি হারতে ভয় পান, তাহলে কখনই জেতার আশা রাখবেন না। 

জীবনে অনুপ্রেরণার গুরুত্ব যে কতটা, তা আমরা কমবেশি  প্রত্যেকেই জানি। প্রত্যেক মানুষই চায়  তারা যেন সর্বদা অনুপ্রাণিত থাকেন। এই অনুপ্রেরণা মূলক বিচার গুলিকে বাস্তব জীবনে ঠিক  মত মেনে চললে যে কোনো মানুষের জীবন অনয়াসেই বদলে যেতে পারে

মোটিভেশনাল ভিডিও দেখতে উপরের ডানদিকের কর্নারে YouTube লিঙ্ক অথবা এখানে Pkrnet এই লিঙ্কটির উপর ক্লিক করুন। এতক্ষণ সময় দিয়ে পড়ার জন্যে তোমাকে  অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই  পিকেআর নেট  ব্লগ - এর পক্ষ থেকেপোস্টটা ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই একটু Comment করে তোমার মতামত আমায় জানিও |তোমার মূল্যবান মতামত আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাতে ভীষনভাবে সাহায্য করে।



 

No comments:

Post a comment