Monday, 9 December 2019

How to Improve Your Motivational Skill, Series 52 (Prerana)


প্রেরণা সিরিজ - ৫, PRERANA SERIES - 52 (Motivational & Inspirational)
লেখক – প্রদীপ কুমার রায়।
                                                  আগেই বলে নিচ্ছি কেননা তোমরা পরে ভুলে যাবে বাকি অন্যান্যদের  সাহায্যের উদ্দেশ্যে শেয়ারটা মনে করে, করে দেবে। শুরু করছি আজকের বিষয় 
                                         নমস্কার বন্ধুরা আমি প্রদীপ  তোমাদের সবাইকে আমার এই Pkrnet Blog   স্বাগতম।আশা করি সবাই তোমরা  ভালোই  আছো  আর  সুস্থ আছো।

আমার ওয়েবসাইটে যেতে এখানে ক্লিক করুন 
শিক্ষকদের প্রতি - ২

শিশু শিক্ষকদের দায়িত্ব খুব বেশি। তাদের সর্বদা তৎপর ,সজাগ ও অনুসন্ধিৎসু থাকতে হবে। মানুষের একটা প্রধান প্রবৃত্তি হল অর্জন প্রবৃত্তি। এই অর্জন প্রবৃত্তির দরুনই মানুষ শিখতে পারে, কাজকর্ম করতে পারে, আহরণ  করতে পারে। আসলে মা-ই হল প্রথম ও প্রধান শিশু শিক্ষক। মায়ের জীবন যত  সুনিয়ন্ত্রিত হবে, সন্তানের জীবনও তত সুন্দর ও সুগঠিত হবে। পিত-মাতার মানসিক অবস্থান , প্রকৃতিগত সমতা ও পারস্পরিক সমঝোতা, তাদের সন্তানদের শিষ্ট  ও সচ্চরিত্র হতে সাহায্য করে। শুধু সৎ শিক্ষা বা সৎ উপদেশ দিলেই হবে না , তাদের জানাতে হবে কিরকম আচরণ করতে নাই, কেমন কথা বলতে নেই, কি ধরনের খাদ্য খেতে নেই ইত্যাদি। শিশুদের কুপথ থেকে ফেরানোর জন্য তার উপর অবিরাম উপদেশ বর্ষণ  না করে তার মনটা কৌশলে অন্য বিষয়ে এমনভাবে ঘুরিয়ে দিতে হয় যাতে, সে ঐ কুপথ  একেবারেই ভুলে যায়। ঝোঁকটা ঘুড়ে  গেলেই শিশুদের কুকাজের নেশা কেটে যাবে। পয়সার লোভ, খাওয়ানোর লোভ, বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার লোভ দেখিয়ে ছোটদের কোনো কাজ করাতে নেই কারন, কাজটি সুন্দর ও সুষ্ঠভাবে  নিষ্পন্ন করার দিকে শিশুর লক্ষ্য থাকে না, তখন তার লক্ষ্য ঝুঁকে পড়ে পাওয়ার দিকে। বাড়ির ভেতরকার রীতিনীতি , অভ্যাস, ব্যবহার যত মার্জিত ও সুনিয়ন্ত্রিত হবে শিশুর জীবনও তত সুগঠিত ও উন্নত হবে। শিশু-জীবনে খেলাধুলার বিন্যাস ঠিকমত হলে শিশুর শরীর , মন ও চরিত্র সুগঠিত হবে।

ছেলেমেয়েদের প্রথম শিক্ষা শুরু হয় তার  মায়ের কাছে। তাই মায়ের অভ্যাস, চাল চালন খুব নিয়ন্ত্রিত হওয়া  চাই। মায়ের একটু ভুল সন্তানের অনেক ক্ষতি  করতে পারে। সন্তানের স্বভাব , রুচি, পছন্দ, বৈশিষ্ট্য মায়ের নখ-দর্পনে থাকা চাই। সন্তানদের এমনভাবে কখনোই বকা উচিত নয় যাতে তার আত্মবিস্বাশ  নষ্ট  হয়ে যায়। যে শিক্ষা আমাদের শুধু সুসময়  ও সুখের জন্য প্রস্তুত করে, অথচ দুঃসময় ও দুঃখের জন্য প্রস্তুত করে না, সে শিক্ষা প্রকৃত শিক্ষা নয়। শিক্ষা এমন হবে যাতে সমস্ত বাস্তবিকতার মধ্যে নিজেকে প্রস্তুত করা যায় । ভালো মানুষ বলতে বা শিক্ষিত মানুষ বলতে বুঝতে হবে সেইসব মানুষকে যারা বাস্তবিকভাবে মানুষের ভালো করে। একটা বিষয় পড়াতে  গিয়ে তার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বহু বিষয় শিখিয়ে দিতে পারা  যায়। ছেলেদের কাছে ছেলেদের মত করে পরিবেশন করতে হবে যাতে তাদের মাথায় ঢোকে। কোথায় কতটুকু বলতে হবে, তার  মাত্রাজ্ঞান থাকা চাই। একটা বিষয়কে বিভিন্ন দিক থেকে দেখতে হবে, তাতে ছাত্রছাত্রীদের জ্ঞান  পাকা হবে।
Famous Personalities

শিক্ষকের খুব সহ্য , ধৈর্য্য ও সহানুভূতির দরকার। ছাত্ররা কেন বুঝতে পারছে না, তার বুঝের পাল্লা কতদূর অগ্রসর হয়ে  আছে, তার বুঝের দরজা কোনটা সেটা অনুধাবন করতে হবে। শাসন ও আদরের সুষ্ঠ  সমাবেশ চাই, তার সঙ্গে চাই মাত্রাজ্ঞানও । অভিবাবক , শিক্ষক সবারই হওযা  চাই আদর্শনিষ্ঠ। ছাত্রকে কেন্দ্র করে অভিবাবক ও শিক্ষকের  মধ্যে যোগাযোগ থাকা দরকার। যারা বড় বড় কথা বলে , আলোচনা করে অথচ কাজে তা করে না -- তারা যদি শিক্ষক হন , তবে ছাত্ররাও তো তাই করবে। শিক্ষকের উচিত  ছাত্রের জানার প্রবৃত্তিকে উস্কে দেওয়া। সবথেকে বড় ব্যাপার হল পড়াশোনার প্রতি অনুরাগ ও আগ্রহ। ছাত্রদের মানসিকতার বিকাশই প্রধান কথা। যে বিষয়ই পড়ানো  হোক না কেন, তার নৈতিক , বাস্তব সামাজিক দিকগুলি ছাত্রদের সামনে তুলে  ধরতে হবে। প্রধান শিক্ষক হবেন তিনিই যিনি প্রকৃষ্টকে ধারণ করার শিক্ষা দেন।

জীবনে অনুপ্রেরণার গুরুত্ব যে কতটা, তা আমরা কমবেশি  প্রত্যেকেই জানি| প্রত্যেক মানুষই চায়  তারা যেন সর্বদা অনুপ্রাণিত থাকেন |
এই অনুপ্রেরণা মূলক বিচার গুলিকে বাস্তব জীবনে ঠিক  মত মেনে চললে যে কোনো মানুষের জীবন অনয়াসেই বদলে যেতে পারে 
মোটিভেশনাল ভিডিও দেখতে উপরের ডানদিকের কর্নারে YouTube লিঙ্ক অথবা এখানে Pkrnet এই লিঙ্কটির উপর ক্লিক করুন।
এতক্ষণ সময় দিয়ে পড়ার জন্যে তোমাকে  অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই  পিকেআর নেট  ব্লগ - এর পক্ষ থেকে | 
পোস্টটা ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই একটু Comment করে তোমার মতামত আমায় জানিও |তোমার মূল্যবান মতামত আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাতে ভীষনভাবে সাহায্য করে।


No comments:

Post a comment