Thursday, 16 January 2020

আপনার অনুপ্রেরণামূলক দক্ষতা কীভাবে উন্নত করবেন, সিরিজ-৭২(প্রেরণা)[How to Improve Your Motivational Skill, Series-72(Prerana)]


প্রেরণা সিরিজ - ৭২,PRERANA SERIES-72(Motivational & Inspirational)
লেখক – প্ৰদীপ কুমার রায়।

আগেই বলে নিচ্ছি কেননা তোমরা পরে ভুলে যাবে বাকি অন্যান্যদের  সাহায্যের উদ্দেশ্যে শেয়ারটা মনে করে,করে দেবে এবং ডানদিকের উপরের কোনে অনুসরণ বাটন অবশ্যই ক্লিক করে অনুসরণ করবে।শুরু করছি আজকের বিষয় 
নমস্কার বন্ধুরা আমি প্রদীপ  তোমাদের সবাইকে আমার এই Pkrnet Blog   স্বাগতম।আশা করি সবাই তোমরা  ভালোই  আছো  আর  সুস্থ আছো।


আমার ওয়েবসাইটে যেতে এখানে ক্লিক করুন


শৃগাল নিজেকে অতি  বুদ্ধিমান বলে  মনে করে -- কিন্তু আসলে শৃগাল বুদ্ধিমান নয়, সে হলো ধূর্ত । ধূর্ত অন্যকে ঠকানোর চেষ্টা করে--ভাবে, অন্যকে ঠকাতে পারলে তার লাভ আছে। কিন্তু আসলে তা নয়, অন্যকে জয়যুক্ত করার মধ্যেই লুকানো রয়েছে নিজের কল্যাণ ও লাভ। তুমি যত  বেশি লোকের কল্যাণের কারন হতে পারবে , ততই তোমার মঙ্গল হবে, তোমার প্রতিষ্ঠা বাড়বে এবং তোমার অগ্রগতির পথও প্রশস্ত হবে। যে আজ একরকম বোঝেন আবার আগামী কাল অন্য রকম মানে বের করে এবং সেই রকম ব্যাখ্যা থেকে ফায়দা উঠানোর ধান্দায় থাকে, সেই ব্যক্তি লোককেও প্রবঞ্চনা করে এবং নিজেও আখেরে প্রবঞ্চিত হয়। কাজেই, ধূর্ত শৃগালের রাস্তায় যেও না-- সরলভাবে চিন্তা করো, বিষ্বাসঘাতক পদবি তোমাকে অলংকৃত করবে না। লোকের স্নেহ-ভালোবাসা পাবে এবং জয়যুক্ত হবে। চতুরবুদ্ধি  শৃগাল  অপেক্ষা  নিরীহ এবং  সরল  খরগোশ  হয়ে  থাকা  অনেক ভালো । শৃগালের স্বভাব  বিশ্বাসঘাতকতা করে জিতে বেরিয়ে আসা, কিন্তু সেই জয় শেষ পর্যন্ত তাকে নিজের ফাঁদেই কয়েদ করে রাখে--তাকে ঠকতেই  হয়।

কখনোও মিথ্যাচারের রাস্তা নিও না, যে তত্ত্বকে সঠিক বলে বুঝেছো তা চিরকালের জন্যই সঠিক---
সত্যের রং এবেলা-ওবেলা পাল্টায় না, সত্য চিরদিনই সত্য। সত্যবাদীকে কেউ কোনোদিনই মিথ্যাবাদী বলবে না। ইতর প্রাণীদের একটা সঠিক অনুভিতি থাকে, তাই নিয়ে সে চলেফিরে খায় এবং বেঁচে বর্তে  থাকে। কিন্তু শৃগালতুল্য ব্যক্তি আসলে আহাম্মক বলে শেষদৌড়ে নিজের জালে নিজেই জড়িয়ে পড়ে  ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়। সদ্বুদ্ধি এবং সুষ্ঠ চালনা দ্বারা মানুষের অন্তর জয় করো --শেষে দৌড়ে জয়ী হবে তুমিই।

অনেক সময় উপকারপ্রাপ্ত  ব্যক্তি উপকারীর  নিন্দায় পঞ্চমুখ হয়ে থাকে। অতি অধম শ্রেণীর মস্তিষ্কের অধিকারী না হলে কেউ এমন কুৎসায় নামে  না। পরবর্তীকালে এই জাতীয় মূর্খরা নিজের খোঁড়া গর্তে পরে নিজেরাই মরে। তখন তাদের রক্ষা করার কেউ থাকে না। যার কাছ থেকে কোনো দিন সামান্য একটু উপকার পেয়েছো তার কথা কখনোও ভুলে যেও না। উপকারীর  উপকার অস্বীকার করার মতো মহা ভুল কখনোও করো না। পরিপূর্ন ধ্বংসের এটাই নির্ভুল পথ । উপকার মনে রাখা একটি মহান ধর্মের কাজ। কৃতঘ্ন ব্যক্তি নিজের হাতেই নিজের কবর খুঁড়ে থাকে, তার মৃত্যুর জন্যে অন্য লোককে এগিয়ে আস্তে হয় না। আশ্রিত ব্যক্তি যখন তার আশ্রয়দাতার নিন্দায় পঞ্চমুখ হয়, তখন সে বিশ্বাসঘাতকের তালিকায় শীর্ষে আছে। আশ্রয়দাতার নিন্দা জঘন্যতম অপরাধ। বিপৎকালে আশ্রয় পেয়ে সুদিনে যে তা ভুলে যায় সে শুধু অকৃতজ্ঞ নয়---তাকে কৃতঘ্নই বলা চলে। মনে রাখবে যে এটিচুড  বা মনোভঙ্গি একটা ছোট জিনিষ যা একটা বড় পার্থক্য গড়তে পারে। জয় হবেই হবে--অভীষ্টলাভ হবেই হবে,"কিঁউকে ওহি হোতা হ্যায় যো মনজুরে খোদা হোতা হ্যায়"।
শ্রীকৃষ্ণের শেষকটা দিন 

জীবনে অনুপ্রেরণার গুরুত্ব যে কতটাতা আমরা কমবেশি  প্রত্যেকেই জানিপ্রত্যেক মানুষই চায়  তারা যেন সর্বদা অনুপ্রাণিত থাকেন |
এই অনুপ্রেরণা মূলক বিচার গুলিকে বাস্তব জীবনে ঠিক  মত মেনে চললে যে কোনো মানুষের জীবন অনয়াসেই বদলে যেতে পারে 
মোটিভেশনাল ভিডিও দেখতে উপরের ডানদিকের কর্নারে YouTube লিঙ্ক অথবা এখানে Pkrnet এই লিঙ্কটির উপর ক্লিক করুন।
এতক্ষণ সময় দিয়ে পড়ার জন্যে তোমাকে  অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই  পিকেআর নেট  ব্লগ - এর পক্ষ থেকে | 
পোস্টটা ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই একটু Comment করে তোমার মতামত আমায় জানিও |তোমার মূল্যবান মতামত আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাতে ভীষনভাবে সাহায্য করে।

No comments:

Post a comment