Wednesday, 8 January 2020

আপনার অনুপ্রেরণামূলক দক্ষতা কীভাবে উন্নত করবেন, সিরিজ-৬৭(প্রেরণা)[How to Improve Your Motivational Skill, Series-67 (Prerana)]


প্রেরণা সিরিজ ৬৭,PRERANA SERIES-67(Motivational & Inspirational)
লেখক – প্ৰদীপ কুমার রায়।
                                            আগেই বলে নিচ্ছি কেননা তোমরা পরে ভুলে যাবে বাকি অন্যান্যদের  সাহায্যের উদ্দেশ্যে শেয়ারটা মনে করে,করে দেবে এবং ডানদিকের উপরের কোনে অনুসরণ বাটন অবশ্যই ক্লিক করে অনুসরণ করবে।শুরু করছি আজকের বিষয় 
                                    নমস্কার বন্ধুরা আমি প্রদীপ  তোমাদের সবাইকে আমার এই Pkrnet Blog   স্বাগতম।আশা করি সবাই তোমরা  ভালোই  আছো  আর  সুস্থ আছো।



যারা লেখাপড়া করে আনন্দ পায় , তারা ভাল করবেই, কেউ তাদের আটকাতে পারবে না। সিলেবাস যতই লম্বা হোক ,যতই ওজনদার হোক, ঠিক পরীক্ষার আগে লেখাপড়া করে তারা বেরিয়ে যাবে। যেমন তারা স্কুলে করবে তেমনটি তারা কলেজেও করবে। কলেজের কাজটা হচ্ছে বিষয়টা শেখা , সিলেবাসটা শেখা নয়, এটা যারা মনে রাখতে পারবে তাদের চিন্তার পরিধিটাও প্রসারিত হবে। তারা কুয়োর মধ্যে পড়ে  থাকবে না।

বন্ধুত্ব তৈরির জন্য আগে নিজেকে তৈরী করা দরকার। যার উপর আস্থা আছে, তাকে নিজের মনের কথা খুলে  বলো, নতুন বন্ধু তৈরী করো খোলা  মন নিয়ে। তোমাদের বয়সটাই হচ্ছে বন্ধুদের দ্বারা প্রভাবিত হওয়ার বা কিছুটা চালিত হবার বয়স। তোমার ক্ষেত্রেও সেটা হতে পারে। তোমাকে বুঝতে হবে, তুমি যাদের কথায় প্রভাবিত হচ্ছো  তারাও তোমার বয়সী এবং তোমার মতোই জীবনে অনভিজ্ঞ। এমন মনে হবে যে বন্ধুদের কথাই ঠিক । তারাই তোমাকে ঠিক বুঝছে, শুধু মা-বাবাই বুঝতে চাইছে না। কিন্তু অনেক সময়ই দেখবে, বন্ধুরা নিজেরাও নিজেদের ক্ষেত্রে ঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারছে না। 

যত  বড় হবে, তত বুঝতে শিখবে যে জীবনে  বন্ধুদের যেমন একটা জায়গা রয়েছে, তেমনি বাবা-মায়েরও একটা স্বতন্ত্র স্থান রয়েছে, যেখান  থেকে তাঁরা সারা জীবন সন্তানের মঙ্গলের জন্য চিন্তা করেন। এখন তোমার বাবা-মায়ের যে কথাটা শুনতে ভালো লাগছে না বা যে সমস্যায় বাবা-মায়ের দেখানো সমাধানটা তোমার মনঃপুত হচ্ছে না, তুমি নিজে সংসার জীবনে প্রবেশ করলে দেখবে , ওই জায়গায় দাঁড়িয়ে তুমিও তোমার বাবা-মায়ের মতোই কথা বলছো। সব সময় মনে রাখবে, মা-বাবা সব সময়ই তোমার হিতাকাঙ্খী ছিলেন এবং আজও আছেন। 
The Whistler 

 যদি তুমি প্রত্যেকটা দিন এমন ভাবে বাঁচতে পারো, যেন সেটাই তোমার জীবনের শেষ দিন , তাহলে একদিন না একদিন জীবনের হিসাব মিলবেই মিলবে। 'আমি আর বেশি  দিন নাই' --এটা মনে রাখাই তোমার জীবনের বড় সিদ্ধান্তগুলো নেওয়ার পথে তোমার সবচেয়ে বড় হাতিয়ার। তার কারন মৃত্যুর সামনে সব কিছু হার মেনে যায়-- বাইরের সব প্রত্যাশা, সব অহংকার , সব লজ্জা , ব্যর্থতার সব আশঙ্কা , সব কিছু। থেকে যায় সেটাই যেটা কেবলমাত্র গুরুত্বপূর্ণ।
  1. "দুনিয়াতে মানুষের মনই বোধহয় সবচেয়ে দূর্গম ও দুর্জ্ঞেয়"–মুহম্মদ আবদুল হাই
  2. "নিষ্ঠার সাথে পরিচর্য়া করলে জীবনের লালিত্য বৃদ্ধি পাবে" –রিচার্ড হেনরি
  3. "জীবন এমন একটা স্তম্ভ, যা আমারা একা বহন করতে পারি না" –জ্যাকুইন মিলার
  4. "জীবন হচ্ছে সাদা কাগজের পাতা। তার মধ্যে আমাদের কেউ কেউ লিখতে পারে তার দু একটা কথা, তারই নেমে আসে রাত্রি" –জে আর লাওয়েল
  5. "জীবন মানে অনিশ্চিৎ ভ্রমণ "–উইলিয়াম শেক্সপিয়র
  6. "মানুষের জীবন এক চমৎকার উপকথা, যা বিধাতা নিজে নিখেছেন" –হ্যান্স ক্রিশ্চিয়ান এন্ডারসন
  7. "মানুষের জীবনের বড় শত্রু হলো তার সংশয়, অবিশ্বাস, সন্দেহ" –সমরেশ বসু
  8. "বয়েসের সংগে সংগে মানুষের মনের অনুভূতি পরিবর্তন হয়" –সিডনি স্মিথ
  9. "জীবন হচ্ছে একমাত্র সত্যি ইতিহাস" –কার্লাইল
  10. "জীবন একটা রঙ্গমঞ্চ; সুতরাং তোমার ভূমিকাভিনয় করতে শিখে নাও, গাম্ভীর্যকে এক পাশে সরিয়ে রেখে। নতুবা জীবনের মর্মবেদনা বহন করতে শেখা অপরের মঙ্গল করতে শেখার চেয়ে প্রাযশঃই ঢের বেশী কঠিন" –জসুয়া রথ লিয়েবম্যান
জীবনে অনুপ্রেরণার গুরুত্ব যে কতটাতা আমরা কমবেশি  প্রত্যেকেই জানিপ্রত্যেক মানুষই চায়  তারা যেন সর্বদা অনুপ্রাণিত থাকেন |
এই অনুপ্রেরণা মূলক বিচার গুলিকে বাস্তব জীবনে ঠিক  মত মেনে চললে যে কোনো মানুষের জীবন অনয়াসেই বদলে যেতে পারে 
মোটিভেশনাল ভিডিও দেখতে উপরের ডানদিকের কর্নারে YouTube লিঙ্ক অথবা এখানে Pkrnet এই লিঙ্কটির উপর ক্লিক করুন।
এতক্ষণ সময় দিয়ে পড়ার জন্যে তোমাকে  অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই  পিকেআর নেট  ব্লগ - এর পক্ষ থেকে | 
পোস্টটা ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই একটু Comment করে তোমার মতামত আমায় জানিও |তোমার মূল্যবান মতামত আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাতে ভীষনভাবে সাহায্য করে।


No comments:

Post a comment