Thursday, 12 September 2019

How to Improve Your Motivational Skill, Series 33 (Prerana)


প্রেরণা সিরিজ - ৩৩ ,  PRERANA SERIES - 33  (Motivational & Inspirational)
লেখক – প্রদীপ কুমার রায়।
                                                  আগেই বলে নিচ্ছি কেননা তোমরা পরে ভুলে যাবে বাকি অন্যান্যদের  সাহায্যের উদ্দেশ্যে শেয়ারটা মনে করে, করে দেবে। শুরু করছি আজকের বিষয় 
                                         নমস্কার বন্ধুরা আমি প্রদীপ  তোমাদের সবাইকে আমার এই Pkrnet Blog   স্বাগতম।আশা করি সবাই তোমরা  ভালোই  আছো  আর  সুস্থ আছো।


                             Harvard Medical School এর হাবার্ট বেনশন ধ্যান আর কুণ্ডলিনী করাকালীন অবস্থায় ধ্যান সাধকের মস্তিষ্কে বিশেষ এক ধরনের স্ক্যান করেন। এতে পরিষ্কার দেখা যায় যে, ধ্যান চলাকালীন ধ্যানীর প্রায় সম্পূর্ণ মস্তিস্কই শান্ত ও অনুত্তেজিত হয়ে পড়ে। কিন্তু সচল থাকে সেই স্থানগুলি যা আমাদের শ্বাস-প্রশ্বাস, রক্ত চলাচল, হার্ট ইত্যাদি নিয়ন্ত্রণ করে। অর্থাৎ যাবতীয় ভাইটাল ফাংশন চলতেই থাকে। এইরূপ অবস্থা থাকে না যখন ধ্যান অবস্থার বাইরে থাকা যায়। বেনশন বলেছেন, এর থেকেই প্রমাণিত--ধ্যান চলাকালীন এবং বারবার ধ্যান অভ্যাস করলে ধ্যানীর মস্তিস্ক শান্ত হয়ে পড়ে। আর এই শান্ত অবস্থায় মস্তিস্ক অনেক ভালোভাবে শারীরিক প্রক্রিয়াগুলির নজরদারি ও নিয়ন্ত্রণ করতে পারে।শরীরের উপর মস্তিষ্কের নিয়ন্ত্রণ, আমাদের দেশের জ্ঞানী ঋষিরা কত যুগের আগে হদিশ পেয়েছিলেন এবং তার ব্যবহারিক প্রয়োগ শিখিয়েছিলেন, এটা  ভাবলেও বিস্ময় লাগে এবং গর্ববোধ হয়।

                                  বাবা-মা বা বড়রা ছোট ছেলেমেয়েদের কথা, ওদের সমস্যা সংক্রান্ত বিষয় গুরুত্ব দিয়ে শুনুন। অযথা ধমক , বকাবকি বা চিৎকার করলে ওদের মধ্যে কুন্ঠা ও দ্বন্দ্ব তৈরী হয়। হীনমন্যতায় ভোগার সম্ভবনা থেকে যায়, যা থেকে ওদের উৎপত্তি হতে পারে টেনশন। কিশোর কিশোরীরা সাধারনত নিজেদের কর্তব্য সম্পর্কে ওয়াকিবহাল না হওয়ার জন্য ওদের অযথা বকাবকি না করে আন্তরিকতার সঙ্গে ওদের কর্তব্য সম্পর্কে ওয়াকিবহাল করে তুললে  ওদের টেনশন বেড়ে ওঠার সুযোগ থাকে না।
ALCHEMIST 

                            কৈশোর থেকে যৌবন জীবনে প্রবেশের মুখে কিশোর-কিশোরীদের থাকে মনের উপর বাড়তি চাপ। তাই ওদের সঙ্গে বন্ধুর মতো মেশা উচিত। ওই সময়ে অল্পতেই ওদের বকাবকি করলে ওদের টেনশন হতে পারে। সমস্যা আছে তাই টেনশন থাকবেই। আবার ধৈর্য্য ,সাহস ও মনোবলকে সঙ্গী করে সহজেই নিজেকে টেনশনমুক্ত রাখাও সম্ভব।

                              অতিরিক্ত মানসিক চাপ বা স্ট্রেস অনুভব করলে কখনোই বেশি সময় ধরে বসে বা শুয়ে থাকতে নেই তার বদলে বাইরে গিয়ে অন্তত ১০ মিনিট হাঁটাচলা করা উচিত আর মুক্ত বাতাস যতটা পারা যায় নিঃশ্বাসের মাধ্যমে নেওয়া উচিত |তারফলে মস্তিষ্ক একেবারে রিলাক্স হতে শুরু করবে আর মনটাও ফ্রেশ লাগবে খুব। বৈজ্ঞানিক রিসার্চ দ্বারা এটি প্রমানিত যে, যেই সব মানুষেরা রোজ মেডিটেশন,যোগাসন কিংবা শরীরচর্চা করে তাদের স্ট্রেস Level একদম কম থাকে বাকি সাধারণ মানুষ যারা এইসব কিছুই করেনা তাদের তুলনায়তুমি যদি ইনস্ট্যান্ট স্ট্রেস থেকে খানিকটা রিলিফ পেতে চাও তাহলে Breathing টেকনিক তোমার কাজে আসতে পারেতাই এবার থেকে আর দেরি না করে স্ট্রেস মুক্ত লাইফস্টাইল maintain করতে শরীরের উপর বিশেষ যত্ন নেওয়া শুরু করে দাও  |
আপনার জীবনকে কে বদলে দেবে? আপনার দৃষ্টিভঙ্গি বদলে দেবে” – Bill Gates
প্রতিদিন নিজের সেরাটা দিতে হবে” – Bill Gates
সাফল্য একটি পরিপূর্ণ শিক্ষক, এটি স্মার্ট মানুষদের চিন্তার মধ্যে ঢুকিয়ে দেয় তারা কখনো ব্যর্থ হবেনা” – Bill Gates
সবচেয়ে অসুখী মানুষের প্রতি লক্ষ্য করুন, অনেক কিছু শিখতে পারবেন” – Bill Gates
জীবনে অনুপ্রেরণার গুরুত্ব যে কতটা, তা আমরা কমবেশি  প্রত্যেকেই জানি| প্রত্যেক মানুষই চায়  তারা যেন সর্বদা অনুপ্রাণিত থাকেন |
এই অনুপ্রেরণা মূলক বিচার গুলিকে বাস্তব জীবনে ঠিক  মত মেনে চললে যে কোনো মানুষের জীবন অনয়াসেই বদলে যেতে পারে 
মোটিভেশনাল ভিডিও দেখতে উপরের ডানদিকের কর্নারে YouTube লিঙ্ক অথবা এখানে Pkrnet এই লিঙ্কটির উপর ক্লিক করুন।
এতক্ষণ সময় দিয়ে পড়ার জন্যে তোমাকে  অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই  পিকেআর নেট  ব্লগ - এর পক্ষ থেকে | 
পোস্টটা ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই একটু Comment করে তোমার মতামত আমায় জানিও |তোমার মূল্যবান মতামত আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাতে ভীষনভাবে সাহায্য করে।


No comments:

Post a comment