Friday, 16 August 2019

How to Improve Your Motivational Skill, Series 14 (Prerana)

প্রেরণা সিরিজ ১৪, PRERANA SERIES - 14 (Motivational & Inspirational)
লেখক – প্রদীপ কুমার রায়।

আগেই বলে নিচ্ছি কেননা তোমরা পরে ভুলে যাবে  বাকি  অন্যান্যদের  সাহায্যের উদ্দেশ্যে  শেয়ারটা  মনে  করে, করে দেবে। শুরু করছি আজকের বিষয় 

নমস্কার বন্ধুরা আমি প্রদীপ  তোমাদের সবাইকে আমার এই Pkrnet Blog   স্বাগতম।আশা করি সবাই তোমরা  ভালোই  আছো  আর  সুস্থ আছো।



                                                  বই  এবং প্রতিবেদন পড়ার অভ্যাস তোমাকে উদ্দীপনা যোগাবে । ব্যবহারিক উপযোগিতার দিকে নজর দিতে হবে এবং অপরকে সাহায্য করতে হবে , এই ব্যাপারটা বুঝতে দিতে। এটাই সম্মতির প্রথম অংশ। কুস্তিতে অলিম্পিকের স্বর্ণপদক বিজয়ী ডান গাবলে বলেছিলেন, "আমি যখন ক্লান্ত হয়ে পড়ি এবং অনুশীলন থামাতে চাই তখন ভাবি যে আমার প্রতিদ্বন্দ্বী কি করছে। যখন দেখি সেও অনুশীলনে ব্যস্ত তখন আমিও নিজেকে অনুশীলনে ব্যাপৃত করি। যখন আমি দেখি যে সে অনুশীলন ছেড়ে স্নান করছে তখন আমি আরো বেশি  কিছুটা অনুশীলন করে নিই"। কেবলমাত্র লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য যে প্রচেষ্টা তাও সাফল্যের অন্তর্ভুক্ত। অসফল হওয়া  দোষের কিছু নয় কিন্তু চেষ্টার অভাব একটি বড় বিচ্যুতি। সাফল্যের লক্ষ্য পূরণের জন্য যা অবশ্যই করতে হবে, তা হল বার বার চেষ্টা করা এবং যা করা উচিত নয় তা করার ইচ্ছাকে প্রতিরোধ করা। রালফ  ওয়াল্ডো  ইমারসন বলেছিলেন, " কেবল অপরের থেকে সাহসী বলে নয়, অপরের থেকে দশ মিনিট বেশি  সাহস দেখিয়েছিলেন বলেই একজন লোক বীর বলে পরিচিত হযে যায়"।

                                                কোনও বিষয় যদি মনে রাখার মতো করে পড়তে হয় , তাহলে পড়ার পর বিষয়টি নিয়ে মনে মনে ভাবতে হবে। বার বার ঝালিয়ে নিলেই এক সময় পড়াটি  মনের মধ্যে গেঁথে যাবে। নিজের ক্ষমতার পুরোটা ব্যবহার করতে হবে। অনেক সময় অনেক পরিবেশ ঠিক পড়াশোনার উপযোগী হয় না। কিন্তু নিজের যদি পড়াশোনার ইচ্ছে থাকে, তাহলে তার মধ্যেই কাজ করে যাওয়া সম্ভব। অশান্তি থেকে একটু সরে এসে নিজের কাজে ডুবে যেতে হবে। কিছু পরীক্ষা কঠিন, কিছু সহজ। কিছু পরীক্ষায় জিৎ হয় আর কিছু পরীক্ষায় হার হয়। সব সময় যথাসাধ্য চেষ্টা করতে হবে। যখন চাকরি খোঁজা শুরু করবে তখন  প্রথমেই যে কাজটা করতে হবে তা হল আত্মসমীক্ষা।
MOTIVATE 
          নিজের টার্গেট তৈরী করে নাও। নিজেকে ফাঁকি দিও না। পড়া তৈরী হওয়ার পরেই  গল্পের বইয়ে  হাত দাও। পড়ার অভ্যাসটা ছেড়ো না যেন। আজকের পড়া তোমার ভবিষ্যতে প্রচুর কাজে আসবে। তোমার চারপাশের লোকজনের চেয়ে অনেক এগিয়ে থাকবে তুমি । প্রত্যেক বাবা-মায়েরই উচিত ঐ অভ্যাসটিকে সমর্থন করা।

          প্রত্যেকের প্রতিভা আছে , তবে প্রত্যেকে এটি ব্যবহার করতে জানে না। এই বিশ্বের লোকেরা তিনটি বিভাগে বিভক্ত  :- ১) যার প্রতিভা আছে,  ২) যে জানে যে তার প্রতিভা আছে,  ৩) যারা প্রকৃতপক্ষে নিজেদের প্রতিভা ব্যবহার করে। যখন আমরা যুবক এবং আমাদের পড়াশুনা শেষ তখনও আমরা আমাদের স্বপ্নে বিশ্বাস করি। আমরা আমাদের বিশেষ্যত্ব জানি,কেবলমাত্র শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং শংসাপত্রের ভিত্তিতে যখন আমরা আমাদের পেশা বেছে নিই তখন প্রায়শই আমরা আমাদের প্রতিভা ভুলে যাই। আমরা আমাদের আগ্রহ এবং বিশেস্বত্ব অবহেলা করি। আর তখনি আমাদের প্রতিভা বিলুপ্ত হতে শুরু করে। প্রত্যেকেরই প্রতিভা আছে, প্রত্যকেই জীবনে অসাধারন করার সম্ভবনা নিয়ে জন্মেছে। দুর্ভাগ্যক্রমে, আমরা তা না জেনে নিজেকে সাধারন মনে করি।

দরকার ছাড়া যে পাশে সর্বদা থাকে, সেই হচ্ছে আপনজন


তুমি এটা কখনই বলতে পারো না যে তোমার  কাছে পর্যাপ্ত সময় নেই, কারণ তুমি দিনে ঠিক একই পরিমান (২৪ ঘন্টা) সময় পাও  যা পৃথিবীর মহান আর সফল লোকেরাও পায়"
এটা কোনো ব্যাপারই নয়  যে তুমি কত ভুল করেছো  বা তুমি কত ধীর গতিতে প্রগতি করছো তুমি এখনো ওইসব মানুষগুলির থেকে এগিয়ে যারা কোনদিন চেষ্টাও করেনা কিছু করার
আত্মবিশ্বাসের দ্বারা তুমি জীবনের উচ্চ শিখরে পৌছাতে পারবে, কিন্তু আত্মবিশ্বাস ছাড়া তুমি সামান্য কিছুও অর্জন করতে পারবে না
জীবনে অনুপ্রেরণার গুরুত্ব যে কতটাতা আমরা কমবেশি  প্রত্যেকেই জানিপ্রত্যেক মানুষই চায়  তারা যেন সর্বদা অনুপ্রাণিত থাকেন |

এই অনুপ্রেরণা মূলক বিচার গুলিকে বাস্তব জীবনে ঠিক  মত মেনে চললে যে কোনো মানুষের জীবন অনয়াসেই বদলে যেতে পারে 

মোটিভেশনাল ভিডিও দেখতে উপরের ডানদিকের কর্নারে YouTube লিঙ্ক অথবা এখানে Pkrnet এই লিঙ্কটির উপর ক্লিক করুন।

এতক্ষণ সময় দিয়ে পড়ার জন্যে তোমাকে  অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই  পিকেআর নেট  ব্লগ - এর পক্ষ থেকে | 

পোস্টটা ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই একটু Comment করে তোমার মতামত আমায় জানিও|তোমার মূল্যবান মতামত আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাতে ভীষনভাবে সাহায্য করে |

No comments:

Post a comment