Saturday, 24 August 2019

How to Improve Your Motivational Skill, Series 19 (Prerana)

প্রেরণা সিরিজ ১৯, PRERANA SERIES - 19  (Motivational & Inspirational)
লেখক – প্রদীপ কুমার রায়।

                                                  আগেই বলে নিচ্ছি কেননা তোমরা পরে ভুলে যাবে বাকি অন্যান্যদের  সাহায্যের উদ্দেশ্যে শেয়ারটা মনে করে, করে দেবে। শুরু করছি আজকের বিষয় 

                      নমস্কার বন্ধুরা আমি প্রদীপ  তোমাদের সবাইকে আমার এই Pkrnet Blog   স্বাগতম।আশা করি সবাই তোমরা  ভালোই  আছো  আর  সুস্থ আছো।

                                                       সত্যের মুখোমুখি হতে শেখো। তুমি কখনোই নিজেকে জানতে পারবে না,যতক্ষন না তুমি সত্যের মুখোমুখি হচ্ছো। চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে শেখো , তার থেকে পালিয়ে যেও না। তুমি কাউকে কিছুই শেখাতে পারবে না, তুমি কেবল তাকে সাহায্য করতে পারো, সেই জিনিষটা নিজের মধ্যে খুঁজে পেতে । তুমি যদি সত্যই সাফল্য চাও তবে তোমাকে বিফলতার চেয়ে সাফল্যের ইচ্ছাকে বৃহত্তর করতে হবে। কারো সমালোচনা বা নিন্দাকে উপেক্ষা করার জন্য তোমার কিছুই করার দরকার নাই বা বলার দরকার নাই এবং কিচ্ছু দরকার নাই। যদি তোমার ইচ্ছা না থাকে, তবে তোমাকে কেউ  নিকৃষ্ট  ভাবতে পারবে না। মনে রেখো , তুমি অন্য কারোর আশা অনুযায়ী এই পৃথিবীতে বেঁচে নেই বা অন্য কেউও তোমার পেত্যাশা অনুযায়ী এই পৃথিবীতে বেঁচে নাই।
                                                    অতীতকে মনে রেখে কষ্ট পাওয়ার কোনো কারন থাকবে না, কিন্তু অতীত অবশ্যই জানা উচিত এই কারনে , যে অতীতের পুনরাবৃত্তি যেন না হয়। ভুল থেকে শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে। ব্যর্থতা নয়, সাফল্যের উপর জোর দিতে হবে। তোমার ব্যর্থতায় কিছু লোক হাস্তে বা বিরক্ত হতে পারে। তারা তো তোমার নিয়ন্ত্রণে নেই। তাই তোমার কাজ তুমি নির্ভিকভাবে করে যাও। তোমার অন্তরের সঙ্গে তোমার বোঝাপড়া অত্যন্ত জরুরি। বিবেককে জাগ্রত করতে হবে যাতে বিবেক তোমার দোষ ত্রূটি দেখিয়ে দিয়ে তোমাকে সাবধান করতে পারে। সহজে হাল ছাড়লে চলবে না, যে কাজ আরম্ভ করবে তা অবশ্যই শেষ করবে। তবে কাজটা শুরু করার আগে অবশ্যই দেখে নিতে হবে যে কাজটা তোমার সাধ্যের মধ্যে কিনা। যতক্ষন  পড়াশোনা করবে ততক্ষন জয়ের আশা বেঁচে থাকবে।
 
REASONING 
             নিজে দায়িত্ব গ্রহণ করতে শেখো। নির্দিষ্ট লক্ষ্য রেখে কাজ  করতে শেখো। সুনির্দ্দিষ্ট সাফল্যের প্রত্যাশা রাখতে হবে। সৌভাগ্য বা দুর্ভাগ্যকে বরণ  করে নেবার মত মন তৈরী রাখো। কর্মক্ষেত্রের খবর খাবার রাখতে হবে। সর্বদা প্রস্তুত থাকতে হবে। সিদ্ধান্ত নিতে পিছপা হওয়া উচিত নয়। আবেগ সংযত রাখতে হবে এবং সম্ভবনাপূর্ণ ঝুঁকি নিতে শিখতে হবে।

               এখনই তুমি তোমার প্রতিভা ব্যবহার করো এবং এটাই যথার্থ সময় তোমার প্রতিভাকে ব্যবহার করার । একবার তুমি তোমার  হৃদয়ের আহ্বান সনাক্ত করো , অলস হয়ে বসে থেকো না। নিখুঁত সময় বা আরও সুযোগের জন্য অপেক্ষা করে তোমার  মেধা ধরে রাখবে না। ইভান প্যানিন যেমন বলেছিলেন, "তিনি যে প্রতিভা আছে তার প্রশংসার দাবি রাখেন না, তবে তিনি যে তাদের ব্যবহার করেন।"প্রতিভা কাজ করবে না, যদি তুমি তা ব্যবহার  না করো । তুমি এটি সম্পর্কে কোনও পদক্ষেপ না নিলে এটি তোমাকে  অনুপ্রাণিত করবে না। আনন্দটি তোমার  প্রতিভা সম্পর্কে স্বপ্ন দেখতে নয়, বরং সেই প্রতিভাটি ব্যবহার করার ক্ষেত্রে। তোমার  প্রতিভা ব্যবহার করার জন্য প্রথম পদক্ষেপ নাও  এবং মাত্রা অন্বেষণ করো। প্রত্যেকেরই প্রতিভা আছে,অনেকেই  এটি জানে এবং কিছু জন এটির  ব্যবহার করে। সেখানেই মহত্ত্বের পার্থক্য রয়েছে ।

জীবনে অনুপ্রেরণার গুরুত্ব যে কতটাতা আমরা কমবেশি  প্রত্যেকেই জানিপ্রত্যেক মানুষই চায়  তারা যেন সর্বদা অনুপ্রাণিত থাকেন |
এই অনুপ্রেরণা মূলক বিচার গুলিকে বাস্তব জীবনে ঠিক  মত মেনে চললে যে কোনো মানুষের জীবন অনয়াসেই বদলে যেতে পারে 
মোটিভেশনাল ভিডিও দেখতে উপরের ডানদিকের কর্নারে YouTube লিঙ্ক অথবা এখানে Pkrnet এই লিঙ্কটির উপর ক্লিক করুন।
এতক্ষণ সময় দিয়ে পড়ার জন্যে তোমাকে  অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই  পিকেআর নেট  ব্লগ - এর পক্ষ থেকে | 
পোস্টটা ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই একটু Comment করে তোমার মতামত আমায় জানিও |তোমার মূল্যবান মতামত আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা যোগাতে ভীষনভাবে সাহায্য করে |

No comments:

Post a comment